logo

সময়: ০৭:২০, রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১

২৮ চৈত্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ০৭:২০ অপরাহ্ন

গাজীপুরে অপহরণের পর যুবককে হত্যা,দুই বছর পর আসামি গ্রেফতার।

Jahangir Alom
০৩ এপ্রিল, ২০২১ | সময়ঃ ০৯:২৭
photo
গাজীপুরে অপহরণের পর যুবককে হত্যা,দুই বছর পর আসামি গ্রেফতার।

সালাহ উদ্দিন সৈকত(গাজীপুর প্রতিনিধি): গাজীপুরে অপহরণের পর মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে মৃণাল চন্দ্র বর্মণ (৩৫) নামে যুবককে হত্যার দুই বছর পর দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

শনিবার (৩ এপ্রিল) পিবিআইয়ের জেলা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন পিবিআইয়ের গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান। গ্রেফতারকৃতরা হলেন,গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার লাল চামার এলাকার মো.নয়া মিয়ার ছেলে মো.আনারুল ইসলাম (৩০) ও তার ভায়রা মো. সাইদুর রহমান (৩৫)। পিবিআইয়ের গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান বলেন,২০১৯ সালের ৮ মার্চ গাজীপুরের কালিয়াকৈরের পল্লী বিদ্যুৎ অফিস সংলগ্ন এলাকা থেকে রাত ১০টার দিকে নিজ বাড়ি গাইবান্ধার সাঘাটায় যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হন মৃণাল চন্দ্র বর্মণ (৩৫)। রাত সাড়ে ১০টার দিকে মৃণালের মোবাইল ফোন থেকে তার স্ত্রীকে জানানো হয় তার স্বামী মৃণালকে অপহরণ করা হয়েছে। তাকে ফিরে পেতে ২০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। এ ঘটনায় অপহৃত মৃণালের স্ত্রী বিথী রানী বাদী হয়ে ওই বছরের ১৩ মার্চ কালিয়াকৈর থানায় অভিযোগ দাখিল করেন। থানা পুলিশ মামলাটি পাঁচ মাস তদন্ত করে এর ক্লু উদ্ধার করতে পারেনি। আদালতের নির্দেশে পিবিআই গাজীপুরের পরিদর্শক এসএম শাকিল হাসান মামলাটি তদন্ত শুরু করেন।

আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনায় জড়িত অপহরণ দলের সদস্য মো.আনারুল ইসলামকে গাইবান্ধা থেকে গ্রেফতার করেন।পরে তার তথ্যমতে অপহরণ চক্রের অন্যতম হোতা তার ভায়রা মো.সাইদুর রহমানকে অন্য একটি হত্যা মামলায় গাইবান্ধা জেলা কারাগার আটক থাকা অবস্থায় গ্রেফতার দেখানো হয়।সাইদুর রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে ঘটনার বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে।

শেয়ার করুন...

আরও পড়ুন...

ফেসবুকে আমরা…