logo

শিরোনাম

নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপে উজ্জীবিত থাকতে চায় বাংলাদেশ

নিউজ সেভেন্টি ওয়ান ডট টিভি ডেস্ক
প্রতিবেদন প্রকাশ: ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | সময়ঃ ১২:০০
photo
ছবিঃ সংগৃহীত

খেলা ডেস্ক: আসন্ন বিশ্বকাপের আত্মবিশ্বাসী হতে সফরকারী  নিউজিল্যান্ডকে হারানোর লক্ষ্য নিয়ে আগামীকাল মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু করছে  বাংলাদেশ বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।   একই ভেন্যুতে  সিরিজের সবগুলো ম্যাচ শুরু হবে দুপুর ২টা থেকে।   ঘরের মাঠে নিজেদের সর্বশেষ সিরিজে আফগানিস্তানের কাছে ২-১ ব্যবধানে  পরাজিত হয়েছিল  যা ছিল  ২০১৫ সালের পর ঘরের মাঠে  টাইগার দলের তৃতীয় সিরিজ হার । এর মধ্যে একমাত্র  ইংল্যান্ডের কাছে দু’বার  সিরিজ হেরেছে বাংলাদেশ।

 


আফগানিস্তান সিরিজের পর এশিয়া কাপে জ¦লে উঠতে পারেনি বাংলাদেশ। কিন্তু সুপার ফোর পর্বের শেষ ম্যাচে আসরের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়ে স্মরণীয়  সাফল্য অর্জন করে টাইগাররা। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, নাজমুল হোসেন শান্তর মত দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়েছে বাংলাাদেশ। দলে ফিরিয়ে আনা হয়েছে তামিম ইকবাল এবং মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের মত অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের।  

 


চলতি বছরের মার্চে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের পর দল থেকে বাদ পড়া মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের কাছে এটি মূলত  নিজেকে প্রমানের মঞ্চ।  বিশ্বকাপের আগে খেলা মধ্যে থাকার জন্য এই সিরিজটি পিঠের ইনজুরি থেকে সুস্থ হয়ে উঠা তামিমের জন্যও গুরুত্বপুর্ন।  বিশ্বকাপে জাতীয় দলে নিজেদের সুযোগের পথ তৈরি করতে পারে  এমন কিছু খেলোয়াড়দের নিয়ে এ সিরিজের জন্য দল সাজিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। নিউজিল্যান্ডও নিজেদের প্রথম সারির খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়েছে। আপাত দৃষ্টে মনে হচ্ছে  উভয় দলই এমন কিছু খেলোযাড়  রেখেছে   যারা ব্যক্তিগত পারফরমেন্স দিয়ে জ¦লে ওঠার পাশাপাশি বিশ্বকাপ দলে সুযোগের জন্য নিজেদের অবস্থানকে আরও শক্তিশালী করে তোলা।  সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতিতে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দিবেন লিটন দাস। তার মতে, দল না জিতলে ব্যক্তিগত পারফরমেন্স তেমন একটা গুরুত্বপূর্ন নয়। 

 


লিটন আজ বলেন, ‘আপনি পাঁচ উইকেট নিতে পারেন বা সেঞ্চুরি করতে পারেন, কিন্তু ম্যাচ হেরে গেলে এমন পারফরমেন্স  গুরুত্বপূর্ণ নয়।’ তিনি আরও বলেন, ‘দেশের জন্য দলের হয়ে সিরিজ জয় করার চেয়ে বড় কিছু নেই। সিরিজ জয়ের জন্যই আমরা লড়াই করবো। আমরা আমাদের সেরা খেলাটাই খেলতে চাই।’ ১৩ বছর ধরে বাংলাদেশকে নিজ  মাটিতে  হারাতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। সঙ্গত কারণেই  এমন রেকর্ড সফরকারীদের জন্য মোটেও আত্মবিশ^াসী করার মত নয়। বাংলাদেশ সফরে সর্বশেষ ২০০৮ সালে টাইগারদের   ২-১ ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ জিতেছিল নিউজিল্যান্ড। এরপর ২০১০ সালে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ৪-০ ব্যবধানে হারের লজ্জা পায় নিউজিল্যান্ড।  সিরিজের একটি ম্যাচ বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছিলো। জিম্বাবুয়ে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বাদ দিয়ে প্রথমবারের মতো শীর্ষ কোন দলকে হারিয়েছিলো বাংলাদেশ।

 


সর্বশেষ ২০১৩ সালে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশের কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল  নিউজিল্যান্ড।  তবে সর্বশেষ ২০২১ সালে বাংলাদেশ সফরে পাঁচ ম্যাচের  টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশ কাছে ৩-২ ব্যবধানে হেরেছিল কিউইরা। বাংলাদেশ সিরিজে দলকে নেতৃত্ব দেয়া লুকি ফার্গুসন, ট্রেন্ট বোল্ট, রাচিন রবীন্দ্র, ইশ সোধি এবং উইল ইয়ংসহ বিশ^কাপ দলে জায়গা পাওয়া মাত্র পাঁচ খেলোয়াকে  ঢাকা পাঠিয়েছে নিউজিল্যান্ড।    ফার্গুসন বলেন, ‘বাংলাদেশে খেলার চ্যালেঞ্জ সর্ম্পকে আমরা জানি। নিজেদের কন্ডিশনে তারা খুব

 

ই শক্তিশালী দল। তবে আমরা আমাদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করবো।’ সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত ৩৮টি ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছে  বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড। এরমধ্যে বাংলাদেশ জিতেছে ১০টিতে এবং হেরেছে ২৮টিতে। ওয়ানডে ফরম্যাটে সর্বশেষ ২০১৭ সালে কার্ডিফে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েছিলো বাংলাদেশ। ঐ অবিস্মরনীয় জয়ের পর নিউজিল্যান্ডের কাছে টানা সাত ম্যাচে হেরেছে টাইগাররা। তবে   হারের বৃত্ত থেকে  বেড়িয়ে আসতে  এটাই বাংলাদেশের সামনে সেরা  সেরা সময় এবং নিজেদের মাঠে স্পষ্টতভাবে ফেভারিট টাইগাররা। 

 


বাংলাদেশ দল : লিটন দাস (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, এনামুল হক বিজয়, তাওহিদ হৃদয়, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, নুরুল হাসান সোহান, মাহেদি হাসান, নাসুম আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, তানজিম হাসান সাকিব, তানজিদ হাসান তামিম, জাকির হাসান, রিশাদ হোসেন, সৈয়দ খালেদ আহমেদ।

 


নিউজিল্যান্ড দল : লুকি ফার্গুসন (অধিনায়ক), ফিন অ্যালেন, চাদ বোয়েস, উইল ইয়ং, টম ব্লান্ডেল, ডিন ফক্সক্রফট, হেনরি নিকোলস, রাচিন রবীন্দ্র, কোল ম্যাককোঞ্চি, ডেন ক্লিভার, কাইল জেমিসন, এডাম মিলনে, ইশ সোধি, ব্লেয়ার টিকনার ও ট্রেন্ট বোল্ট। 

  • নিউজ ভিউ 4347